• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৫৩ অপরাহ্ন

কচুয়ার শ্রীরামপুর ইস: আলিম মাদ্রাসায় নাছির উদ্দিনের নেতৃত্বে আধুনিকতার ছোঁয়া 

আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০

জিসান আহমেদ নান্নু,কচুয়া ॥
নিজের স্বপ্ন, সাধ-আল্লাসকে বিসর্জন দিয়ে যিনি মানুষ ও সমাজের জন্য কাজ করেন তিনিই মহান। আর এমন একজন মহান ও মানবিক ব্যক্তি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধার অন্যতম সংগঠক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা এম.এ রশিদ প্রধান। তিনি এলাকাবাসীর কাছে আব্দুর রশিদ ঠিকাদার নামে পরিচিত ছিলেন। তাঁর সুযোগ্য জৈষ্ঠ্য সন্তান, চট্টগ্রাম শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক মো: নাছির উদ্দিন প্রধান প্রয়াত বাবার স্বপ্ন পূরনে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বিশেষ করে তাঁর বাবার হাতে গড়া শ্রীরামপুর মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসা,শ্রীরামপুর মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া নূরানী মাদ্রাসা ও এতিমখানা,শ্রীরামপুর মোহাম্মদিয়া জুমা মসজিদসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলেন। বাবার অবর্তমানে শ্রীরামপুর মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার গভর্নিংবডির সভাপতি মো: নাছির উদ্দিন প্রধান ওই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি পদে দায়িত্ব গ্রহন করেন। তিনি দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে সরকারি উন্নয়নের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে মাদ্রাসাটির গুনগত শিক্ষার মান উন্নয়ন,আধুনিকতার ছোঁয়া,বাউন্ডারীর লাইটিং,আসবাবপত্র, শিক্ষক, শিক্ষার্থীদের নানান ভাবে সুযোগ সুবিধা প্রদান করেন। যা এলাকাবাসীর মাঝে চমক সৃষ্টি হয়। এলাকাবাসী জানান, যেকোনো সময়ের চেয়ে নাছির উদ্দিন প্রধান এ প্রতিষ্ঠানের হাল ধরায় শিক্ষার মান চোখে পড়ার মতো। এ সময়ে আলিম,দাখিল, জেডিসি ও ইবতেদায়ী পরীক্ষায় শতভাগ পাস, জিপিএ-৫ ও মেধা বৃত্তির দিক থেকে মাদ্রাসাটির সুনামে এগিয়ে রয়েছে।
স্থানীয় অধিবাসী সাবেক ইউপি সদস্য গাজী আমিনুল ইসলাম,মাদ্রাসার বিদ্যুৎসাহী সদস্য সাংবাদিক আফাজ উদ্দিন মানিক ও মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সদস্য শ্রীরামপুর বাজার ব্যবসায়ী আবুল বাসার বাচ্চু বলেন, বর্তমান সভাপতি নাছির উদ্দিন প্রধান আমাদের গ্রামের গৌরব। তাঁর প্রয়াত বাবার ন্যায় তিনি এলাকার মানুষের পাশে ছুটে আসেন সবার আগে। বিশেষ করে তিনি শ্রীরামপুর মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার গভনির্ংবডির সভাপতি হওয়ার পর তার ব্যক্তি প্রচেষ্টায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ, সভাপতি ও শিক্ষকদের বিভিন্ন কক্ষে আসবাবপত্র প্রদান,শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন ভাবে বৃত্তি প্রদান,মেধা পুরস্কার ও ওয়াল বাউন্ডারীতে সুসজ্জিত আলোক সজ্জার ব্যবস্থা করেন। ওয়াল বাউন্ডারীতে আলোকসজ্জা করায় সন্ধ্যার পর শ্রীরামপুর বাজার এলাকাটি আলোকিত হয়ে থাকে। প্রথমেই আসলে মনে হয় এ যেন এক অন্যরকম শহরে এসেছি। আমরা এলাকাবাসী তাঁর এমন মহতী কাজ দেখে অনুপ্রানিত হয়েছি। তাকে আমরা জেলা কিংবা উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করতে প্রশাসনের নিকট জোর আবেদন জানাচ্ছি।
মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা নুরুল আলম মজুমদার বলেন, আমাদের মাদ্রাসাটি ১৯৮০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। বর্তমানে ১৯জন শিক্ষক,কর্মচারীসহ রয়েছে এবং মাদ্রাসায় প্রথম থেকে আলিম পর্যন্ত প্রায় ৫শতাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে। গভর্নিংবডি,শিক্ষক ও সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় দ্বীনি শিক্ষার পাশাপাশি শতভাগ ও সন্তোষজনক ফলাফল উপহার দিয়ে আসছি। ফলাফলের ধারা বজায় রাখতে শিক্ষকদের প্রচেষ্টায় অব্যাহত থাকবে। এদিকে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক নাছির উদ্দিন প্রধানের আন্তরিক প্রচেষ্টায় শ্রীরামপুরে প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আলোকসজ্জা ও উন্নয়নের ছোঁয়া লাগায় তাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন এলাকার বিভিন্ন শ্রেণীর পেশার মানুষ।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…