• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৩৭ অপরাহ্ন

হাজীগঞ্জে বদরপুর মাদরাসা গেটে তালা !! কিন্তু মসজিদ তালা বলে অপপ্রচার

আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া ছবির গেটে লেখা আছে এবং তা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, এম.এ.এস কাদেরীয়া চিশতীয়া হোসাইনীয়া সুন্নিয়া দাখিল মাদরাসা কমপ্লেক্স। এটি একটি ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। যেখানে ইবতেদায়ী থেকে দাখিল (এস.এস.সি সমমান) পর্যন্ত পড়ালেখা হয়ে থাকে।
মাদরাসাটি হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন ৭নং ওয়ার্ড টোরাগড়-বদরপুর গ্রামে বদরপুর কাদেরীয় চিশতীয়া হোসাইনীয় মাদ্রাসা ও এতিমখানা কমপ্লেক্সে অবস্থিত। বদরপুর গ্রামের শিক্ষা ও আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ১৯৯৯ সালে মাও. আবু সুফিয়ান খাঁন আল কাদেরী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি (মাদরাসা)সহ কমপ্লেক্সটি প্রতিষ্ঠা করেন।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে উক্ত মাদরাসাটিও গত তিন মাস যাবৎ বন্ধ রয়েছে। তাই মাদরাসার মূল ফটকে (গেটে) তালা দিয়েছে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ। অথচ স্থানীয় একটি স্বার্থান্বেষী মহল, মসজিদ গেটে তালা দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে ফেসবুকে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা সোমবার (১৫ জুন) বিকালে ফেসবুকে এই মিথ্যা অপপ্রচার করে।
কর্তৃপক্ষ জানান, বদরপুর দরবার শরীফ কমপ্লেক্সের আওতাধীন মসজিদে গাউছুল আজম জিলানী (রা:) নামক মসজিদটি দীর্ঘদিন জরাজীর্ণ অবস্থায় ছিলো। পরবর্তীতে মসজিদের মুসুল্লী ও এলাকাবাসীর উদ্যোগে এবং দরবারের প্রতিষ্ঠাতা ও মসজিদের মোতওয়াল্লীর অর্থায়নে, দরবারের ভক্তবৃন্দ ও গ্রামবাসীর সহযোগিতায় একটি নতুন মসজিদটি নির্মাণ করা হয়।
এরপর গত ২৯ মে (শুক্রবার) জুমার নামাজ শেষে দোয়া ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে নব-নির্মিত মসজিদের উদ্বোধন করেন, দরবারের প্রতিষ্ঠাতা ও মসজিদের মোতওয়াল্লী শায়েখ মাও. মো. আবু ছুফিয়ান খাঁন আল কাদেরী। উদ্বোধনের পর থেকেই নতুন মসজিদে নিয়মিত নামাজ আদায় হচ্ছে। কিন্তু স্থানীয় একটি স্বার্থান্বেষী মহল, আইন অমান্য করে কমপ্লেক্সের উন্নয়নমূলক কাজে বাধা প্রদান এবং ফেসবুকসহ বিভিন্নভাবে অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট।
কর্তৃপক্ষ আরো জানান, দীর্ঘদিন মসজিদটি জরাজীর্ণ থাকার পরও ওই স্বার্থান্বেষী মহলের কারনে নতুন মসজিদ নির্মাণ করা যায়নি। তারা মসজিদ নির্মাণ কাজে বাধা প্রদানসহ দরবার কর্তৃপক্ষকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করে আসছিলো। যা এখনো অব্যাহত আছে। অবশেষে ন্যায় ও সত্যের কাছে হার মানতে হয় তাদের। দীর্ঘ আইনি প্রক্রিয়ায় শেষে মসজিদ নির্মাণ করা হয়।
দরবারের প্রতিষ্ঠাতা ও মসজিদের মোতওয়াল্লী মাও. মো. আবু ছুফিয়ান খাঁন আল কাদেরী জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী দেশের সকল ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠাণ বন্ধ রয়েছে। তাই মাদরাসা বন্ধ থাকায় নিরাপত্তার স্বার্থে মাদরাসা গেটে তালা ঝুলানো হয়েছে, মসজিদে নয়। তাছাড়া মসজিদের জন্য আলাদা গেট (ফটক) রয়েছে।
স্বার্থান্বেষী মহল নতুন নতুন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা (স্বার্থান্বেষী মহল) আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল নয়। যার ফলে তারা অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। এখনো তারা বিভিন্ন সময়ে হামলা ও গালমন্দ করে। এসব কাজে তারা মহিলাদেরকেও ব্যবহার করে। তাই তিনি প্রশাসনসহ আইন-শৃঙ্খলার বাহিনীর সু-দৃষ্টি কামনা করেন।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…