• শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৩০ অপরাহ্ন

হাজীগঞ্জে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে মৃতদের সৎকারে স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠণ

আপডেটঃ : সোমবার, ৮ জুন, ২০২০

মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্

হাজীগঞ্জে হিন্দু ধর্মালম্বীদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গে মৃত ব্যক্তিদের সৎকারে স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠণ করা হয়েছে। সোমবার বিকালে হাজীগঞ্জ পৌর মহাশশ্মানে আয়োজিত এক সভায় মৃতদের সৎকারে তিনটি কমিটি গঠণ করা হয়।

পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বৈশাখী বড়ুয়ার দিক-নির্দেশনা ও সার্বিক সহযোগিতায় এই সৎকার কমিটি গঠণ করা হয়। দুইজন সমন্বয়কারীর নেতৃত্বে প্রতিটি কমিটিতে ৬ জন করে মোট ১৮ জন স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে।

কমিটির সমন্বয়কের দায়িত্ব রয়েছেন, স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর রিটন চন্দ্র সাহা ও পৌর মহাশশ্মান পরিচালনা কমিটির সভাপতি অপন সাহা। স্বেচ্ছাসেবক কমিটির ১ম দলে যারা রয়েছেন তারা হলেন, সুনীল দাস, বাবুল সাহা, মন্ঠু সাহা, সন্তোষ সাহা, দীপক সাহা, স্বপন সাহা ও সন্তোষ শীল।

২য় দলে সদস্যরা হলেন, সঞ্জু সাহা, অপু সাহা, সুভাষ দাস, দুলাল চন্দ্র দুলু সাহা, রাম চন্দ্র রায় ও  দীপক সাহা। ৩য় দলে রয়েছেন, শ্রীবাস সাহা, শ্যামল সাহা, গৌতম সাহা, ইন্দ্রজীৎ দাস, নিরু কুড়ি ও রাম চন্দ্র রায়।

এ ব্যাপারে সমন্বয়কারী রিটন চন্দ্র সাহা জানান, উপজেলায় হিন্দু ধর্মালম্বীদের মধ্যে কেউ যদি করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গে মারা যান, তার সৎকার কার্যক্রম সম্পন্ন করবে এই স্বেচ্ছাসেবক কমিটি।

তিনি বলেন, পৌর মহাশশ্মান কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সৎকারের জন্য প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মরদেহ গ্রহণ এবং মরদেহ গ্রহণের চারঘন্টা পর স্বাস্থ্যবিধি অনুযায়ী সৎকার করা হবে।

স্বেচ্ছাসেবক কমিটিতে কেউ যদি অর্ন্তভুক্ত হতে ইচ্ছুক, তাহলে সমন্বয়কারী অথবা শশ্মাণ কমিটির সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানান রিটন চন্দ্র সাহা।

এদিকে সামাজিক দুরত্ম মেনে অনুষ্ঠিত সভায় পৌর আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক রাধা কান্ত রাজু, পৌর মহাশশ্মান পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক স্বপন সাহাসহ অন্যান্য সদস্য এবং হিন্দু ধর্মালম্বীরা উপস্থিত ছিলেন।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…