• বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন

কচুয়ায় ইরি-বোরো ধানের বাম্পার ফলন ॥ ঘরে তোলার অপেক্ষায় কৃষকরা

আপডেটঃ : বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০

কচুয়া : কচুয়ার মনপুরা বিলে পাকা ধানের ফসলি জমি। ধান কাটার অপেক্ষায় কৃষক।

 

 

জিসান আহমেদ নান্নু, কচুয়া ॥
চাঁদপুরের কচুয়ায় চলতি মৌসুমের আগাম ইরি-বোরো ধান কাটা শুরু হয়েছে। এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। পাকা ধান ঘরে তোলার অপক্ষোয় রয়েছে কৃষক।
ধান চাষিরা জানান, বাম্পার ফলন হলেও মজুরি বৃদ্ধি ও শ্রমিক সংকট দেখা দেয়ায় পাকা ধান ঘরে তোলা নিয়ে শঙ্কায় পড়েছেন তারা। সময় মতো ধান কাটতে না পাড়লেও লোকসান গুনতে হবে তাদের। তাই কোথাও কোথাও আগাম কৃষকের পাকা ধান কেটে দিচ্ছেন, স্থানীয় আওয়ামী যুবলীগ,ছাত্রলীগসহ অন্যান্য সামাজিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা।
সরেজমিনে দেখা গেছে, বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে সোনালী ধানের সমারোহ। কিছু জমিতে ধান কাটছেন হাতেগোনা কয়েকজন শ্রমিক।
আবহাওয়া অনকুলে থাকায় ইরি বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। কৃষকরা ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। চারিদিকে শুধু ধান আর ধান।
জুগিচাপড় গ্রামের কুষক মো. হারুনুর রশিদ জানান, বাইছারা গ্রামের কৃষক ওসমান মিয়া জানান, গত বছরের তুলনায় এবার ইরিবোরা ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এখন ঘরে তুলে নিতে পারলে এবং ন্যায্য দাম পেলে স্বপ্ন পুরন হবে।
উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে কচুয়ায় প্রায় ১২হাজার ২১০ হেক্টর জমিতে ধানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়াও আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ধান চাষ করে ভালো ফলন পাবেন কৃষকরা।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুহাম্মদ সোফায়েল হোসেন বলেন, আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে পুরোদমে ধান কাটা শেষ হবে। অধিক ফলনের জন্য আগে থেকে পরিমিত সার ব্যবহার, পানি সাশ্রয় এবং সার্বিক পরিচর্যায় কৃষকদের সচেষ্ট হতে আমরা সব সময়ই পরামর্শ দিয়ে আসছি। এবার কচুয়া এলাকার কোথাও মাজড়া পোকার আক্রমণ এখন পর্যন্ত দেখা দেয়নি। ফলে আমরা আশা করছি, এবার রেকর্ড পরিমাণ জমিতে বোরো ধানের বাম্পার ফলন হবে।

 


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…