• বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৩৯ অপরাহ্ন

শাহরাস্তিতে কৃষকদের ধান কাটছে সুহৃদ সমাজ

আপডেটঃ : রবিবার, ২৪ মে, ২০২০

শাহরাস্তি প্রতিনিধি
করোনা ভাইরাসের( কোভিড-১৯ ) কারণে কৃষকরা জমিতে পাকা ধান নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। অর্থের অভাবে শ্রমিক দিয়ে ধান কাটতে পারছে না কৃষকরা। এমন পরিস্থিতি দেখে চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে অসহায় সাত জন কৃষকের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন ‘সুহৃদ সমাজ নামক একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন। গেল এপ্রিল মাসের ১৫ তারিখ থেকে চলতি মাসের অর্থাৎ মে মাসের ১৮ তারিখ সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শাহরাস্তি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে ৫২ জন(সদস্য) যুবক সাত জন কৃষকের ধান কাটতে মাঠে নামে । এর মধ্যে শাহরাস্তি পৌরসভার বাত্তলা গ্রামে দুই কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে কৃষকের ধান মাথায় করে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে আসেন তাঁরা। এছাড়া ও উপজেলার কুলশি, টামটা,ওয়ারুক, শিবপুর,সংকরপুর, সেনগাওঁ, করবা ও দৈলবাড়ি গ্রামের ছয় অসহায় কৃষকদের বিনা পারিশ্রামিকে ধান কাটার কাজ সম্পাদন করেন সুহৃদ সমাজের সদস্যরা।তাদের এমন মানবিক উদ্যোগে এলাকার সাধারণ কৃষকরা আনন্দিত।

এলাকাবাসী জানান, করোনা ভাইরাসের কারণে আতঙ্কিত হয়ে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। সে কারণে শ্রমিক সংকট আর্থিক যোগান না দিতে পেরে কৃষক ধান কাটতে পারছে না। শাহরাস্তির বিভিন্ন গ্রামের অনেক অসহায় কৃষক শ্রমিক ও অর্থ সংকটে পাকা পাকা ধান কাটতে পারছেনা বলে একটি সংবাদ পায় ওই সংগঠনের সভাপতি ইঞ্জিঃ মোঃ ইমতিয়াজ সিদ্দিকী তোহা । তখন তিনি সংগঠনের প্রধান নির্বাহী মোঃ হাসানুজ্জামানের পরামর্শে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তানজিজুল আজিজ রায়হানের সার্বিক সহযোগীতায় প্রায় বায়ান্ন জন সদস্যদের সমন্বয়ে সাত জন কৃষকদের প্রায় ২৮৫ শতক জমির ধান কেটে বাড়িতে পৌঁছে দেন গেল মাস ব্যাপী।

মাস ব্যাপী ধান কাটা,বাড়িত পৌঁছে দেওয়া,মাড়াই ও খড় শুকানোর কাজে নিয়মিত অংশগ্রহণ করেন,সুহৃদ সমাজের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ লেয়াকত হোসেন মিয়াজী, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ সিদ্দিকুর রহমান নয়ন,সিনিয়র যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ বোরহান উদ্দিন মিয়াজী,যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম রনি,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওঃ মোঃ কামরুল হাসান বাবু,যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ আহমদ,সিনিয়র সদস্য মোঃসাহিদুল ইসলাম রিমন,সদস্য,মোঃ মাহমুদুল হাসান,রাফিউ হাসান,শাহনূর আলম ইমন,নাবিদ,সাব্বির,মাসুদ,শাকিল,আনিছ,রবিন,রফিক মুন্সী ও সোহরাব প্রমূখ। এ সম্পর্কে সুহৃদ সমাজের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তানজিজুল আজিজ রায়হান বলেন,মানবিক কাজে আমরা সবসময় জনগণের পাশে ছিলাম,আছি এবং ভবিষ্যতে ও থাকবো।ইনশাআল্লাহ। সুহৃদ সমাজের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ইঞ্জিঃ মোঃ ইমতিয়াজ সিদ্দিকী তোহা জানান, আমরা বিনা পারিশ্রমিকে সাত জন কৃষকের ধান কেটে দিয়েছি। দেশের এই ক্রান্তিকালে আমরা যুব সমাজ যদি এগিয়ে না আসি তাহলে কে দাঁড়াবে তাদের পাশে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কাউন্সিল শাহরাস্তি শাখার সভাপতি শেখ মোঃ বেলায়েত হোসেন সেলিম বলেন, যারা ঘরে অলস সময় কাটাচ্ছেন তারা চাইলেই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অসহায় কৃষদের পাশে দাঁড়াতে পারেন। আজকে সুহৃদ সমাজ যে কাজটি করেছে তা শাহরাস্তির জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে। এ সংগঠনকে অনুসরণ করে অন্যদেরও এগিয়ে আসা উচিত বলে আমি মনে করি।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…