• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১১:০৩ পূর্বাহ্ন

মতলব দক্ষিণে জেলে কার্ডধারী চাউল বিতরন কালে হরিলুট !!

আপডেটঃ : বুধবার, ৮ এপ্রিল, ২০২০

 

সফিকুল ইসলাম রিংকু:
মতলব দক্ষিণ উপজেলার মেহারন গ্রামের জেলে কার্ডধারীদের চাউল নিয়ে হরিলুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। চাউল বিতরণকে কেন্দ্র করে দুই দফা সংর্ঘষ হওয়ায় ওই গ্রামে চাউল বিতরণ স্থগিত রয়েছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

 

জানা যায়, উপজেলার নায়েরগাঁও দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মৃধা গত ৫ এপ্রিল ওই গ্রামের ৪শত ৫০ জন জেলে কার্ডধারীদের মাঝে চাউল বিতরণের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনের পর তিনি ওই গ্রামের স্থানীয় প্রহলাদ নামের এক যুবককে জেলেদের চাউল বিতরণের দায়িত্ব দিয়ে চলে যান। উদ্বোধনী দিনে ১শত ৭৫ বস্তা চাউল বিতরণের সময়কালে ৭০ বস্তা বিতরণ শেষে ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি নগেন্দ্র দাস ও তার ছেলে মন কুমার দল-বল নিয়ে ১শত বস্তা চাউল হরিলুট করে নিয়ে যায়। এই সংবাদ পেয়ে মতলব দক্ষিণ থানার এসআই সবুজ সঙ্গেীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পরিস্থিতি সামাল দেয়। পরে ৬ এপ্রিল আবারো চাউল দেওয়া শুরু হলে ৫ এপ্রিলের ঘটনার রেশ ধরে আবারো হট্টগোল দেখা দিলে চাউল বিতরণ বন্ধ করে দেওয়া হয়।

 

চাউল পাওয়া একাধিক জেলেরা বলেন, আমাদের নামে চাউল নায়েরগাঁও বাজার থেকে আনার কথা ছিলো। কিন্তু এই মুহুর্তে চাউল বাড়ির কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য বস্তা প্রতি ৫০ টাকা নেয় এবং আমরা ৩৬-৩৮ কেজি করে চাউল পাই।
নগেন্দ্র দাস বলেন, জেলেদের নামে ৪০ কেজি করে চাউল দেওয়ার কথা। চাউল দেওয়ার জন্য ৫০ টাকা করে নেওয়ার পরও ৫ থেকে ৭ কেজি করে কম চাউল দেয় তারা। সকল চাউলের বস্তা তাদের কাছেই রয়েছে।

 

প্রহলাদ বলেন, চেয়ারম্যান সাহেব আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন বলেই আমি জেলেদের চাউল দিচ্ছি। কিন্তু নগেন্দ্র ও তার ছেলে মন কুমার দল-বল নিয়ে এসে ১শত বস্তা চাউল হরিলুট করে নিয়ে যায়।

 

উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা ফাহমিদা হক বলেন, চাউল বিতরণ নিয়ে সমস্যা হওয়ার ওই গ্রামে চাউল বিতরণ বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। যাদের কার্ড রয়েছে তারা যেন সঠিক স্থান থেকে চাউল সংগ্রহ করে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…