• শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন

হাইমচরে সুপারী বাগানে মিললো যুবকের লাশ!

আপডেটঃ : বৃহস্পতিবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২০

 

অমরেশ দত্ত জয়ঃ

চাঁদপুর হাইমচরের ৩নং দক্ষিণ আলগী ইউনিয়নের চর পোড়ামুখী গ্রামের সুপারী বাগানে মিললো যুবকের লাশ।২৩শে এপ্রিল বৃহস্পতিবার কুপিয়ে জখমকৃত ওই লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

হাইমচর থানা সূত্রে জানা যায়,খুন হওয়া যুবক হাসিম রাঢ়ীর ছোট ছেলে মোক্তার হোসেন(৩৮) ওরফে মিস্টার রাঢ়ী।তাকে গতকাল দুপুরের পর থেকে পাওয়া যাচ্ছিলো না।এরপর কে কা কারা ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে খুন করেছে।খুন হওয়া যুবকের বড় ভাই আক্তার জানান,আমার ভাই কোন বিঁড়ি-পান সিগেরেট কিচ্ছু খেতো না।তার কোন বদ অভ্যাস নেই।তার কোন শত্রুও জানামতে নেই।কেন এটা হলো বুজতে পারছি না।

 

এ ঘটনা প্রসঙ্গে পিবিআই চাঁদপুরের ইন্সপেক্টর কবীর আহমেদ জানান,খুন হওয়া যুবকের মাথার উপরে বেশ কয়েকটি কোপের চিহ্ন রয়েছে।ধারনা করছি ধারালো দা দিয়ে ৫/৬টি কোপ দেওয়া হয়েছে।আমরা লাশটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি।

 

চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান,খুন হওয়া যুবক ও তার বড় ভাই দুজনে অবিবাহিত। তাদের মা নেই বয়স্ক বাবা আছেন।পরিবারের সবাই গতকাল দুপুরে এক সাথে খাবার খেয়েছে।তিনি আরো জানান,খুন হওয়া যুবকদের অনেকটা জমি-জমা রয়েছে।সে সুদের ব্যবসা করতো।অনেকের কাছ থেকে সুদের টাকা পেতো বলে শুনতে পাচ্ছি।তার পানের বরজ ছিলো।আর জমি-সংক্রান্ত লোভে পরিবারের কেউ জড়িত আছে কিনা! এই সব বিষয় কে সামনে রেখেই ঘটনাটির তদন্ত এগিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

 

পিবিআই চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শংকর কুমার দাস জানান,খুন হওয়া যুবকের মূল বাড়ি থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার দূরে একটি পানের বরাজ ছিলো।সেখানে একটি ছোট ঝুপড়ি ঘর ছিলো।গতকাল আছরের নামাজের পর সে কাজের উদ্দেশ্যে বাড়ী থেকে বের হলে তাকে পরে মৃত পাওয়া যায়।এ ঘটনাটি তদন্তাধীন রয়েছে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…