ছবি- : মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘দোয়া ও আলোচনা সভা’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- নুরুল আমিন রুহুল এমপি।

মনিরুল ইসলাম মনির :
চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আলহাজ্ব নুরুল আমিন রুহুল বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতিকে গভীরভাবে ভালবাসতেন বলেই এ জাতির অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক মুক্তির জন্য আজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। তাঁর সাহস, আপোষহীনতা, দেশপ্রেম ও মানুষের জন্য ভালবাসা এই গুণগুলোকে আমরা ধারণ ও বাস্তবায়ন করতে পারলেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি পরিপূর্ণ সম্মান জানাতে পারব। এসময় বঙ্গবন্ধুর আদর্শে আওয়ামী যুবলীগকে সংগঠিত করতে তৃণমূল নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
রবিবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে গজরায় উপজেলা শিল্পকলা একাডেমী প্রাঙ্গনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ‘দোয়া ও আলোচনা সভা’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে নুরুল আমিন রুহুল এসব কথা বলেন। শোক দিবস উপলক্ষে এমন আয়োজনের জন্য তিনি মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সকল স্তরের নেতৃবৃন্দের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।
নুরুল আমিন রুহুল বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন অবিসংবাদিত নেতা এবং বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ছিলেন তাঁর ছায়াসঙ্গী। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও বেগম মুজিব, তাদের দুই পুত্র, দুই পুত্রবধূ ও শিশু শেখ রাসেলকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এসময় ১৫ আগস্টে শহীদ সকলের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানান নুরুল আমিন রুহুল।
নুরুল আমিন রুহুল বলেন, আমরা আজ স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক। যিনি দিয়ে গেছেন এই স্বাধীন-সার্বভৌম দেশ, লাল-সবুজ পতাকা, তিনি হলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। মৃত্যুর মুখোমুখি দাঁড়িয়ে অদম্য সাহস নিয়ে তিনি জীবনের পরোয়া করেননি। কোন পদ-পদবীর লোভ না করে তিনি গভীরভাবে ভালবেসেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে। জেল-জুলুম-নির্যাতন সহ্য করে তিনি আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করেছেন, তবুও অন্যায়ের সাথে আপস করেননি। ১৯৮১ সালে দলের হাল ধরে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করেছেন। এই দুঃসময় ও ত্যাগ-তিতিক্ষার কথা মনে রেখে আমাদের সকলকে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গঠনে কাজ করে যেতে হবে।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাৎবার্ষিকী উপলক্ষে মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভা, মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও তাবারুক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন- চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এডভোকেট মো. নুরুল আমিন রুহুল।
মতলব উত্তর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান জহিরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মো. শরীফের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস, ভাইস চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন খাঁন সুফল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম লস্কর, শহীদ উল্লাহ প্রধান, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান প্রধান, গজরা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব হানিফ দর্জি, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি কামরুজ্জামান ইয়ার, প্রচার সম্পাদক রেফায়েত উল্লাহ দর্জি, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এডভোকেট মহসিন মিয়া মানিক, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম ফারুক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য সচিব এডভোকেট আক্তারুজ্জামান, গজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানা উল্লাহ মোল্লা, ফরাজীকান্দি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি কবির হোসেন, দূর্গাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আরমান মুন্সি, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সোহান খাঁন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগ নেতা কাজী মিজানুর রহমান, মফিজুল ইসলাম, মতলব উত্তর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাখওয়াত হোসেন সরকার মুকুল, রিপন পাটোয়ারী, সদস্য কাজি হাবিবুর রহমান, চাঁদপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রহমত উল্লাহ চৌধুরী, এডভোকেট সেলিম মিয়া, জহিরুল ইসলাম চৌধুরী, মতলব ডিগ্রি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন প্রধান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মিরাজ খালিদ, ছেংগারচর পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক আবুল হোসেন ফরাজী, যুগ্ম আহ্বায়ক জামান সরকার, যুবলীগ নেতা ইকবাল হোসেন জয়, নুরে আলম স্বপন, আনোয়ার হোসেন আকাশ।
অনুষ্ঠানের শুরুতে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী তাসলিমা আক্তার আখি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে তার স্বরচিত কবিতা পাঠ করেন।

Share This post