গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ:
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার মাতৃছায়া কিন্ডানগার্টেন এর ৪র্থ শ্রেণির অদম্য মেধাবী ছাত্র আল ইয়াসা আদর (৯) মরণ ব্যাধী ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে। জীবন বাঁচাতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার অনুরোধ তার বাবা মায়ের। সে দুরারোগ্য ‘ক্যান্সার’-এ আক্রান্ত। বর্তমানে সে ঢাকা সিরাজ খালেদা মেমোরিয়াল ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
দেশে এ রোগের চিকিৎসার জন্য অপারেশন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। অপারেশনের পর রোগীর সুস্থ হওয়ার বিষয়ে চিকিৎসাকরাও নিশ্চিত নন। বিদেশে চিকিৎসা করানো হলে শিশুটির বেঁচে থাকার নিশ্চয়তা রয়েছে। তবে এ রোগের চিকিৎসা খুবই ব্যয়বহুল। চিকিৎসার প্রাথমিক পর্যায় থেকে শেষ পর্যন্ত প্রায় ২০ থেকে ২২ লাখ টাকা প্রয়োজন হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
শিশুটির পরিবারের পক্ষে এই ব্যয়বহুল চিকিৎসা করানো সম্ভব হচ্ছে না। চিকিৎসা ব্যয় বহন করতে গিয়ে ইতিমধ্যে সহায় সম্বল হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে গেছে পরিবারটি। ফরিদগঞ্জ পৌর এলাকার আবুল কাশেম কন্ট্রাকটর এর একটি বাসায় থাকেন অসহায় পরিবারটি। চিকিৎসা করাতে নিজের জীবনের জমানো সকল টাকা পয়ঁসা ইতিমধ্যে শেষ হয়েগেছে পরিবারটির। বর্তমানে টাকার অভাবে চিকিৎসা চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে।
তাই মেধাবী শিশুটিকে বাঁচিয়ে রাখার আকুল আবেদন জানিয়েছেন তার মা-বাবা। একদিকে সন্তানের চিকিৎসা, অন্যদিকে সংসারের ব্যয়ভার নিয়ে অসহায় হয়ে পড়েছেন তাঁরা। এমতাবস্থায়, শিশু আল ইয়াসা আদর এর চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীসহ সকল হৃদয়বান ও বিত্তবান ব্যক্তির আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন তার অসহায় মা-বাবা ও স্কুলের সহপাঠীরা।
এদিকে আল ইয়াসা আদর এর প্রিয় শিক্ষাঙ্গন মাতৃছায়া কিন্ডাগার্টেন ফরিদগঞ্জ এর প্রধান শিক্ষক মো. রেজাউল করিম মাসুদ এর সাথে যোগাযোগ হলে তিনি কেঁদে কেঁদে এ প্রতিনিধি জানান, আল ইয়াসা আদর পড়াশোনায় অনেক মেধাবী , আমাদের এ প্রতিষ্ঠানে নার্সারি থেকে পড়াশোনা শুরু করেছে। সব সময় ক্লাশে ও পড়াশোনায় প্রথম স্থান অধিকার করে আসছে আদর। সে যেন সুস্থ হয়ে আবার বিদ্যালয়ে ফিরে আসতে পারে আল্লাহর কাছে সেই প্রার্থনা করি।
শিশুটির চিকিৎসায় সহযোগিতা দিতে সরাসরি যোগাযোগের ও তাদের নিজেদের বিকাশ নং -০১৭৩৪৯৭৬৬৯৬। আর সাহায্য দিন এই চলতি হিসাবে- তাসলিমা চৌধুরী আর্জু, হিসাব নং ২৪০৮৭, বাংলাদেশ ইসলামী ব্যাংক, ফরিদগঞ্জ উপজেলা শাখা।

Share This post