• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪৩ পূর্বাহ্ন

ফরিদগঞ্জে জামাইর ছুরির আঘাতে শ^াশুড়ী আহত, মেয়ে খুন, ঘাতক জামাই আটক

আপডেটঃ : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০

গাজী মমিন, চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ:

পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার গৃদকালিন্দিয়া এলাকার বাপের বাড়িতে তানজিনা আক্তার রিতু (২০) নামে এক গৃহবধূকে খুন করেই ক্ষান্ত হয়নি ঘাতক স্বামী বিদেশ ফেরত আল মামুন মোহন (৩০)। ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাওয়ার আগে মোহন তার শ^াশুড়ীকেও এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করেছে। নির্মম এ ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার ইফতারের আগ মুহুর্তে উপজেলা গৃদকালিন্দিয়া এলাকার খাঁন বাড়িতে।

পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, প্রায় তিন বছর পূর্বে গৃদকালিন্দিয়া ্এলাকার প্রবাসী সেলিম খাঁনের মেয়ে তানজিনা আক্তার রিতুর (২০) সাথে পাশবর্তী রায়পুর উপজেলার দেবীপুর গ্রামের ্আলহাজ¦ মোঃ মমতাজ মাষ্টারের ছেলে আলমামুন মোহনের সাথে পারিবারিক ভাবেই বিয়ে হয়। বিয়ের কয়েক মাস পর থেকেই স্বামী স্ত্রীর মনোমালিন্য দেখা দেয়। বুধবার সন্ধায় তাদের দুজনের সাথে তর্কবিতর্কের এক পর্যায়ে আল মামুন মোহন ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এক পর্যায়ে ঘাতকের ছুরির আঘাতে রিতুর বাম চোখ উপড়ে ফেলে। ডাকচিৎকার শুনে পাশবর্তীরা এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় রিতুকে উদ্ধার করে ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে আসার পর কর্তৃব্যেরত ডাক্তার রিতুকে মৃত ঘোষনা করে। অপরদিকে একই সময়ে রিতুর চিৎকার শুনে তার মা এগিয়ে আসলে জামাইর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আগত রিতুর মা পারভিন আক্তারকে মুমুর্ষ অবস্থায় প্রথমে ফরিদগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর তার অবস্থার অবনতি দেখে তাকে দ্রুত চাঁদপুর সদর হাসপাতালে হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

এ ঘটনার পর ঘাতক স্বামী মোহন পালিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিবের নের্তৃত্বে স্বংগীয় ফোর্স তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতক মোহনকে গৃদকালিন্দিয়া বাজার থেকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে।
এ নিয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ওসি আব্দুর রকিব বলেন, পারিবারিক বিরোধকে কেন্দ্র করে নিজ স্ত্রীকে হত্যার দ্বায়ে ঘাতক আল মামুন মোহনকে আটক করা হয়েছে। আটক মোহনের বিরুদ্ধে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরর প্রস্তুুতি চলছে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…