অমরেশ দত্ত জয়ঃ

করোনাকালে চাঁদপুরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কুমিল্লা এরিয়ার উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা কেন্দ্র ও বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে ।

 

শনিবার(৯ই মে) দুপুরে চাঁদপুর স্টেডিয়াম প্রাঙ্গণে এই মেডিকেল কেন্দ্রের প্রথম দিনে পাঁচ শতাধিক মানুষ বিভিন্ন রোগের প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করেন ।

 

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও সুশৃংখলভাবে সেনাবাহিনীর সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রতিদিন চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চিকিৎসা কার্যক্রম চলবে। এমনটি জানান মেডিকেল টিমের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল নাজমুল হুদা।

 

এ বিষয়ে তিনি আরো জানান, সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন ডা. আয়েশা সিদ্দিকাসহ ৬ জন প্রতিনিধি এই চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। চাঁদপুরের সব উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পর্যায়ক্রমে মানুষের মাঝে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ প্রদান করা হবে। সরকারের নির্দেশিত সামাজিক দূরত্ব বিধি-বিধান মেনে জনসচেতনতায় এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

 

তিনি আরো জানান, বর্তমান সময়ে মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে অনেক রোগী প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা নিতে হাসপাতালে যেতে ভয় পাচ্ছেন। তাদেরকে সেবাদানের লক্ষ্যেই আমাদের এই কার্যক্রম।

 

প্রসঙ্গত, কুমিল্লা সেনানিবাসের অধীনে ২৬টি মেডিকেল টিম বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে। মানুষের আতঙ্ক দূর করতে চিকিৎসা কেন্দ্রে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ পরামর্শ ও বিনামূল্যে ঔষধ প্রদান করছেন।

Share This post