• শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

শাহরাস্তিতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ সভা

আপডেটঃ : রবিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২২

শাহরাস্তি ব‍্যুারোঃ
চাঁদপুরের শাহরাস্তিতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে প্রতিবাদ অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিবাদ জানিয়েছেন ওসমান গনি চৌধুরী (৫৫)।
(২৩ জানুয়ারী) রোববার বিকেলে উপজেলার টামটা দক্ষিন ইউনিয়নের  টামটা পশ্চিম পাড়া হাজী বাড়ির সামনে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জানা যায়, ওই গ্রামের মিয়াজী বাড়ির মৃত আবদুল ওয়াদুদের পুত্র নুরুল হক (৪০) একই গ্রামের মিয়ার বাড়ির মৃত কলিম উল্যার পুত্র ওসমান গনির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা করে। এতে ওসমান গনি উক্ত মামলা প্রত্যাহার করার দাবিতে প্রতিবাদ সভার আয়োজন করেন।

এবিষয়ে প্রতিবাদ সভায় ওসমান গনি তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, নুরুল হক একজন মামলাবাজ। সে আমার এবং আমার পরিবার ও পরিজনের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা করেছে। আমাদের জিজ্ঞাসা না করে  ওয়ারিশদের জায়গা গোপনে ক্রয় করে। এক সময় ওই জায়গা দখলে যাইতে চাইলে আমিসহ অন্যান্য ওয়ারিশগন বাধা প্রদান করি। এতে নুরুল হক গত ২৩ অক্টোবর-২০২১ইং তারিখে শাহরাস্তি মডেল থানায় আমিসহ ৩জনকে বিবাদী করে একটি অভিযোগ দায়ের করে। যা পরিবর্তিতে ১৩৭/২১নং। একটি মামলা আদালতে রুজু হয়। যেই মামলাটি জোরপূর্বক জায়গা দখল ও উক্ত জায়গায় অনাধিকার অনুপ্রবেশকে বাস্তবায়িত করার অপচেষ্টা।
প্রথম মামলার ২মাস ২৫দিনপর একই বাদী গত ১৮ জানুয়ারী-২০২২ইং মঙ্গলবার বিজ্ঞ আমলী আদালতে সিআর-১১/২২নং আরেকটি মামলা দায়ের করেন। যেখানে আমিসহ ৬জনকে বিবাদী করা হয়েছে। উক্ত মামলার ২,৩ ও ৬নং বিবাদী ১৫ জানুয়ারী থেকে ১৮ জানুয়ারী পর্যন্ত কক্সবাজারে ছিলো। এছাড়া ১০জন স্বাক্ষীর মধ্যে ৪,৫ ও ৬নং স্থানিয় স্বাক্ষী ঘটনাস্থলে অনুপস্থিত থাকাসহ ঘটনা সম্পর্কে কিছুই জানেন না মর্মে জানিয়েছেন। এলাকাবাসীরা এধরনের ঘটনা ঘটেছে বলে তাদের জানা নেই মর্মে জানিয়েছেন তারা।
নুরুল হক এভাবে একেরপর এক মিথ্যা মামলা দিয়ে আমি ও আমার পরিজনদেরকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। তাই আমিসহ আমার পরিজন এবং সৃজনশীল  এলাকাবাসীর দাবি নুরুল হক যেন তার দেয়া মিথ্যা ও উদ্যেশ্য প্রণোদিত মামলা প্রত্যাহার পূর্বক এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি করা থেকে বিরত থাকেন। তিনি আরও বলেন, আমি অর্থ-বিত্তহীন একজন অসহায় মানুষ। মামলার মাধ্যমে আমার পরিজনদেরকে ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে মর্মে সাধু সমাজের সুদৃষ্টি কামনা করেন তিনি।
প্রতিবাদ সভার সভাপতি ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল্লাহ্ পাটোয়ারী বলেন, গত ১৭ জানুয়ারী সোমবার বিকেলে এমন কোন ঘটনা ঘটেনি। এখন পর্যন্ত এধরনের ঘটনা সম্পর্কে কেউ কোন আলোচনা কিংবা সমালোচনা করেন নি। মিথ্যা ও উদ্যেশ্য প্রণোদিত এমন মামলার মাধ্যমে ওসমান গনিকে হয়রানি করা হচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
একই গ্রামের দুলাল মজুমদার বলেন, আমরা যে গ্রামে বসবাস করি এখানে কিছু একটা হলে তাৎক্ষণিক চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে আর এমন ঘটনা ঘটেছে যা আমরা কেউই জানিনা। বিষয়টি অত্যন্ত নেক্কারজনক। তিনি এমন ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানান।  এসময় উপস্থিত ছিলেন, মোঃ মিজানুর রহমান, মোঃ ইকবাল হোসেন, হাজী মোঃ আবদুস সাত্তার, মোঃ হাবীবুর রহমান চৌধুরী, বাহার চৌধুরী, মোঃ হোসেন মজুমদার, জাফর হোসেন, মোতাহের হোসেন চৌধুরী, সেলিম ভূঁইয়া, হাবিবুর রহমান পাটোয়ারীসহ শতাধিক এলাকাবাসী।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…