নিজস্ব প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক সহিংসতা, জ্বালাও-পোড়াও কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে এবং সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ঘোষিত নির্দেশনা অনুযায়ী সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজার এলাকায় এই সমাবেশ ও শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনী আসনের সংসদ সদস্য মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম বলেন, গত ১৩ অক্টোবর হাজীগঞ্জে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্খিত ঘটনার সাথে যারা জড়িত, তারা সংবিধান লঙ্ঘন করেছে। তারা ধর্মকে ব্যবহার করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টি করতে চায়।

তিনি বলেন, প্রশাসন ও পুলিশ কাজ করছে। তাদের চিহ্ণিত করে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। এর পাশাপাশি আমরা যদি সবাই মিলে তাদের প্রতিহত করি, তাহলে এরা ভবিষ্যতে সাহস করবে না। এর মধ্যে আমাদের কেউ যদি জড়িত থাকলে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আহসান হাবীব অরুনের সভাপতিত্বে সাংসদ হুশিয়ার দিয়ে বলেন, আমরা উদার রাজনীতি করি, তাই বলে দূর্বল নয়। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি যারা আছে, তারা আত্মাহুতি দিতে যানে পরাজয় নয়। এই আত্মাহুতি দিয়েই বিজয় নিশ্চিত করবে এবং বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ও অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠণে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন, পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবু তাহের, হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব মুফতি আব্দুর রউফ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রোটা. রুহিদাস বনিক, হাজীগঞ্জের ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদ আহাম্মদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব সেলিম মিয়া, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সৈয়দ আহম্মদ খসরু, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন, হাজীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মাসুদ ইকবাল, যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন সোহেল, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) সোহেল আলম বেপারী, সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাছান রাব্বি প্রমুখ।

পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মুন্সি মোহাম্মদ মনিরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য শেষে সাংসদ মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তমের নেতৃত্বে শান্তি শোভা যাত্রাটি হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজার থেকে বের হয়ে কুমিল্লা-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে পূণরায় সমাবেশস্থলে গিয়ে শেষ হয়।

এর পূর্বে শুক্রবার সন্ধ্যায় হাজীগঞ্জের বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির পরিদর্শন ও সনাতন ধর্মামলম্বীদের সাথে কথা বলেন মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীরউত্তম।

Share This post