মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কতিপয় কুচক্রী মহল চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে হিন্দু ধর্মালম্বী পরিবারে ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানী অভিযোগ এনে বিভ্রান্তিকর, মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্য প্রচার করেছে। এসব বিভ্রান্তিকর ও গুজব থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন, হাজীগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রোটা. রুহিদাস বনিক।
এছাড়াও তিনি সবাই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখার অনুরোধ জানান। গতকাল শনিবার দুপুরে রোটা. রহিদাস বণিক হাজীগঞ্জ পশ্চিম বাজারস্থ শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ন জিউর আখড়ার অফিস কার্যালয়ে ধারণকৃত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে আপলোড করে এই অনুরোধ জানান।
রোটা. রুহিদাস বণিক বলেন, হাজীগঞ্জ উপজেলায় নারীর শ্লীলতাহানী ঘটেছে উল্লেখ করে ফেসবুকে একটি পোষ্ট পাওয়া গিয়েছে। যা দু:খের বিষয়। হাজীগঞ্জ উপজেলায় এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ, জাতীয় সংগঠন হিন্দু, বৌদ্ধ ও খিষ্ট্রান ঐক্য পরিষদ এবং বাংলাদেশ হিন্দু মহাজোট এই ব্যাপরে অবগত নয়। অতএব সংশ্লিষ্ট সকলকে এ ধরনের ভুয়া খবর থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করা হলো।
ভিডিও ধারণকালে উপজেলা হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সত্য ব্রত ভদ্র মিঠুন ও পৌর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রোটা. প্রাণ কৃষ্ণ সাহা (মনা) সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ এবং শ্রী শ্রী রাজা লক্ষ্মী নারায়ণ জিউর আখড়া পরিচালনা কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, হাজীগঞ্জে একটি হিন্দু ধর্মালম্বী পরিবারের তিনজন সদস্যকে গণধর্ষণ, হিন্দু পরিবারের তিনজনকে ধর্ষণ এই রমক বেশ কিছু তথ্য উল্লেখ করে হিন্দু ধর্মালম্বীর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুক ও লাইক পেজে পোস্ট পাওয়া যায়। যা মিথ্য, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে জানিয়েছেন হিন্দু সম্পদ্রায়ের নেতৃবৃন্দ।

Share This post