• শনিবার, ০৮ জুন ২০২৪, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

ফরিদগঞ্জে অগ্নীকান্ডে সারা জীবনের সঞ্চয় পুড়ে ছাই ॥ দিশেহারা পরিবার সদস্যরা

আপডেটঃ : রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১

গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ:
ফরিদগঞ্জে বসতঘরে অগ্নীকান্ডে দরিদ্র্য ক্ষেতমজুর লুৎফর রহমান এর সমূদয় আসবাবপত্রসহ বসতঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। সারা জীবনের সঞ্চয় মূহুর্তে নিঃশ্বেস হয়ে গেছে। মাথার গোজার ঠাঁই হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছে পরিবার সদস্যরা। গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুনের সূত্রপাত। আশপাশের মানুষ ছুটে গেলেও আগুনের তীব্রতায় তারা ছিলেন অসহায়। ঘটনাটি ঘটেছে ২৭-এ আগস্ট শুক্রবার সন্ধ্যা সাত ঘটিকায় উপজেলার ১১ নং চর দুঃখীয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে।
সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার আলী আহাম্মেদ জানিয়েছেন, আগুন লাগার খবর পেয়ে বাড়ীর বাসিন্দা ও প্রতিবেশীগণ আপ্রাণ চেষ্টা করেও আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে পারেন নি। ফলে, দারিদ্র্য ক্ষেতমজুর লুৎফর আহাম্মেদ এর বসতঘরসহ সকল আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
শনিবার দুপুরে সরেজমিন ঘটনাস্থলে দেখা যায় চৌচালা টিনের ঘর, কাঠের তৈরী যাবতীয় আসবাবপত্র, চাল, ডাল, লেপ-তোষকসহ পরিধেয় সকল কাপড়-চোপড়, ফ্রিজ, টেলিভিশন, পানির ট্যাংকি, পাকের ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। ওই ঘরের পাশে থাকা কয়েকটি গাছের ডালপালা ও ফল পুড়ে গেছে। এলপি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হওয়ায় অগুনের লেলিহান শিখা চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়ে। ঘরের পাশ দিয়ে অন্যান্য গরের বৈদ্যুতিক লাইন ছিলো। এ জন্য কয়েক শত মানুষের সামনে দীর্ঘ সময় যাবত সব কিছু পুড়ে ছাই হয়েছে। কারও কিছুই করার ছিলো না।
ক্ষতিগ্রস্ত লুৎফর রহমান (৫৬), স্ত্রী সেলিনা বেগম (৪৭), ছোট ছেলে সাকিব (১০) কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। বাড়ির বাসিন্দাগণ বলেন, সাকিব সারা রাত কেঁদেছে, এখনও কাঁদছে। লুৎফর রহমান ও তার স্ত্রী কেঁদে কেঁদে বলেন, আমাদের সারা জীবনের সঞ্চয় চোখের সামনে ছাই হয়ে গেছে। আমাদের ঘরভিটি ছাড়া আরকোনো জমিজমা নেই। নেই কেনো ব্যবসা বা আয় রোজগারের অন্য কোনো উপায়। আমরা সরকারী ও এলাকাবাসীর সাহায্য চাই। সাহায্য ছাড়া আমাদের এখন আর কোনো উপায় নেই।
এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. আলী হোসেন জানিয়েছেন, লুৎফর আহাম্মেদ’র ঘরে রান্নার কাজে ব্যবহার করা গ্যাসের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুনের সূত্রপাত।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…