• শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে সোনার বাংলা বিনির্মানে কাজ করতে হবে : ড. শামছুল হক ভূঁইয়া

আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১

গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ:
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফরিদগঞ্জের গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার সকালে কলেজের উপাধ্যক্ষ মুনীর চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুর -৪ ফরিদগঞ্জ আসনের সাবেক ড.মোহাম্মদ শামছুল হক ভুঁইয়া।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন, আজকের এই দিনে আমরা জাতির পিতাকে হারিয়ে যে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছি তা আমাদের সারাজীবনে পূরণ হবে না। শোকের মাস এলে আকাশ-বাতাস সবকিছুই যেন নিরব হয়ে যায়। সকালের দু ফোঁটা বৃষ্টি আমাদের হয়ে নীরব কান্না করছে। শোকে আমরা মুহ্যমান না হয় একে শক্তিতে পরিণত করতে হবে। শোকের মাসে আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ করার জন্য শপথ নিতে হবে। আমাদের নেতৃত্ব মানতে হবে। আওয়ামী লীগসহ সকল অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মনে রাখতে হবে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে যারা ছিলেন তারাই আমাদের নেতা। তাদের নেতৃত্বে আমাদের চলতে হবে। দলীয় পদ পদবী বা মনোনয়ন যুদ্ধ নয় আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে দলকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন দেখেছিলেন সোনার বাংলার,তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন। সোনার বাংলার সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপান্তরিত করতে হলে আওয়ামী লীগকে অন্তত আরো দুইবার ক্ষমতায় থাকতে হবে। তাই আসুন আমরা সকলে মিলে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে একতাবদ্ধ হয়ে আওয়ামী লীগের পতাকাতলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, তিনি বলেন, শুধুমাত্র স্বাধীনতা অর্জনই নয়, স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে স্বমহিমায় প্রতিষ্ঠা করতে বঙ্গবন্ধু নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধু রাজনৈতিক স্বাধীনতার পাশাপাশি জনগণের অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনের লক্ষ্যে সারাজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত ‘সোনার বাংলা’ প্রতিষ্ঠাই ছিল তার স্বপ্ন। বাঙালি ও বাংলাদেশের ইতিহাসে জাতির জনকের অবদান চিরদিন তাই স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ফরিদগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মহিউদ্দিন ভূঁইয়া ইরান ও গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত কলেজের প্রভাষক পরেশ চন্দ্র দাসের যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবু সাহেদ সরকার,উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান রহমান রানা, যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর হোসেন,আরিফুর রহমান আজাদ,প্রচার সম্পাদক সুলতান আহমেদ রিপন, পৌর আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মজিবুর রহমান পাটওয়ারী,উপজেলা সদস্য ইকবাল মিয়াজী,১৬ নং ইউপি চেয়ারম্যান ইসকান্দার মিয়া,পৌর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমুর বেগম, উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি আবদুস সাত্তার পাটওয়ারী,উপজেলা যুবলীগ সিঃ যুগ্ম আহবায়ক হাজী সফিকুর রহমান,উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উল আলম কামরুল, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মাহব্বু আলম সোহাগ,সাবেক সভাপতি দেলোয়ার মোল্লা,সাধারন সম্পাদক জহিরুল ইসলাম সুজন এবং যুব মহিলা লীগের সভাপতি সুলতানা রাজিয়া দিপু।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ,দপ্তর সম্পাদক আবদুস সামাদ মিন্টু পাটওয়ারী,যুগ্ম সম্পাদক জসিম পাটওয়ারী,উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সিনিয়র সহসভাপতি আবদুল মান্নান,সহ সভাপতি এমরান হোসেন মিলন,সাবেক সহ সভাপতি ও পৌর আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ্ব মোহাম্মদ রসু মিয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুব আলম পাটওয়ারী,পৌর আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ফরিদ আহমেদ রাসেল,উপজেলা যুবলীগ সদস্য রুহুল আমিন রুবেল, জহিরুল ইসলাম,আবুল কাশেম আজাদ, সাব্বির ছৈয়াল, উপজেলা কৃষকলীগের সহসভাপতি জহির হোসেন মিজিসহ আরো অনেকে। আলোচনা সভা শেষে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…