কচুয়া প্রতিনিধি ॥
চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার খিড্ডা গ্রামে শাহাবুদ্দিন মুন্সী সাবুর বসতবাড়ির সীমানা প্রাচীর জোরপূর্বক উঠিয়ে জায়গা দখলের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। খিড্ডা গ্রামের মুন্সী বাড়ির তাজুল ইসলাম,তার ছেলে মোশারফ,বিল্লাল ও আনোয়ার হোসেন গংদের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠে।
ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিক, শাহাবুদ্দিন মুন্সী সাবু ও তার পরিবারের সদস্যরা জানান, আমরা প্রতিপক্ষের ওয়ারিশ থেকে প্রায় ২০ বছর পূর্বে খরিদসূত্রে ৪২ শতাংশ জমির মালিক হয়ে শান্তিপূর্ন ভাবে ভোগ দখল করে আসছি।
প্রতিপক্ষ তাজুল ইসলাম গংরা আমার বাড়ির দক্ষিন অংশে আংশিক জায়গা পাবে দাবি করে রাতের আধারে সীমানা প্রাচীর উঠিয়ে ফেলে দেয়। তাছাড়া আমার বাড়িতে জোরপূবৃক এসে সম্প্রতি টিনের বেড়া ও আমাদের মারধর সহ বিভিন্ন ভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে। আমি বাড়ি মাপ-জোপ করতে চাইলে প্রতিপক্ষরা না এসে সীমানা নির্ধারন করলে সীমানা উপড়ে ফেলে দেয় এবং বর্তমানে প্রতিপক্ষরা এলাকা ছেড়ে গাঁ ঢাকা দিয়ে রয়েছেন।
শাহাবুদ্দিন সাবুর ছেলে সোহরাব হোসেন বলেন, আমার ভাইয়েরা প্রবাসে থাকায় বাড়িতে কেউ না থাকায় প্রতিপক্ষ লোকজন বিভিন্ন সময়ে প্রভাব খাটিয়ে আমাদের হামলা ও হয়রানির চেষ্টা করছে। কিছুদিন আগে আমাদের সীমানার আম গাছ থেকে আম পাড়তে গেলে তারা আমাকে মারধর করে। ফলে আমি এখন ভয়ে আতঙ্কে আছি। মাথার আঘাতের যন্ত্রনায় ছটফট ও দূরের কিছু দেখতে পাই না।
তাই প্রতিপক্ষ তাজুল ইসলাম গংদের অত্যাচার থেকে রক্ষা পেতে স্থানীয় প্রশাসন ও এলাকাবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটি। এদিকে প্রতিপক্ষ তাজুল ইসলাম গংদের বাড়িতে গিয়ে উল্লেখিত ব্যাপারে বক্তব্য জানতে তাদের বাড়িতে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পক্ষ থেকে কচুয়া থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Share This post