• মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ০৬:০৪ অপরাহ্ন

বাবুরহাটে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৩টি দোকানসহ ১২ গোডাউন ভস্মিভূত

আপডেটঃ : শনিবার, ৯ মার্চ, ২০১৯

গাজী মোঃ মহসিন : চাঁদপুর শহরতলির পৌর ১৪নং ওয়ার্ড বাবুরহাটে গ্রামীন ফোনের টাওয়ারের জেনারেরটর বিস্ফোরনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার ৯ মার্চ দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে বাবুরহাট মধ্য বাজারে এ আগুনের সূত্রপাত ঘটে। এতে প্রায় ৫ কোটি টাকার মালামাল পুরে গিয়ে ক্ষতি স্বাধন হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

ঘটনার খবর পেয়ে চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট ও স্থানীয় ব্যবসায়ীরা প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনতে সক্ষম হয়। চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসিম উদ্দিন জানান, আগুনে দোকানদারদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল এসে বিদ্যুৎ ও গ্যাসের সংযোগ কেটে দেওয়া হয়, এতে করে আগুন ছড়িয়ে না যাওয়ায় বাজারের অন্যান্য দোকানগুলো রক্ষা কার সম্ভব হয়।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, পল্লি বিদ্যুতের মেইনলাইনে সংস্কার কাজ চলমান থাকায় গতকাল শনিবার সকাল থেকে বাবুরহাট সহ আশপাশের এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ থাকে। মোবাইল ফোন কোম্পানী গ্রামীন ফোনের টাওয়ার বারেক সুপার মার্কেটের ৫তলা ভবনের ছাদে ও তাদের জেনারেটর নিচতলার পাশেই ছিল। সকাল থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় জেনারেটর বিরতীহিনভাবে চালু থাকার কারনে এবিস্ফোরন ঘটে বলে বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান। জেনারেটর পাশেই ছিল বাজারের লেপ তোশক ব্যবসায়ী ইবকালের গোডাউন, বিস্ফোরনের পর তুলার মধ্যে আগুন লাগার কারনে আগুনের তীব্রতা বেড়ে যায়। ফলে একটি কয়েকটি গোডাউনসহ ও দোকান পুরতে থাকে দাউ দাউ করে।

আগুনে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে রহমানিয়া এন্টার প্রাইজের জুতার দোকান ও বাসনা জুয়েলার্সের স্বর্নের দোকান, মা হার্ডওয়ার ও সেনেটারি দোকানের ৩টি গোডাউন, গাজী বোডিংয়ে মালিক ইকবালের তুলার গোডাইন, মাতৃভান্ডারে হোটেলের পিছনের অংশ, নাছির এন্টার প্রাইজের নগদ টাকা সহ গোডাউনে রাখা মালামাল, কাজী ইলেকট্রনিক্স ও হার্ডওয়ারের মালিক শামিম কাজীর গোডাউন, বাজারের জেনারেটর ব্যবসায়ী আবু সালের বন্ধ করে রাখা গোডাউন, ব্যবসায়ী মিরুর ফলজ গোডাউন, রহমান এন্টার প্রাইজের গোডাউন, কাজী মোস্তফার ফলজ গোডাউন, আবুল খালেকের গোডাউন।

বারেক সুপার মার্কেটের নিচতলার ব্যবসায়ী প্রতক্ষদর্শী বিপ্লব আচার্য্য ও মির্জা ফার্মেসির রাব্বী জানান, আমরা দুজন খুব নিকটেই ছিলাম, যখন জেনারেটরটি বিস্ফোরন ঘটে তখন সাথে সাথে তুলার গোডাউনে আগুন লাগে, ফলে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পরে।

এদিকে আগুন লাগার খবর ছড়িয়ে পরলে বাবুরহাট বাজার ব্যবসায়ীদের মাঝে চরম আতংক ছড়িয়ে পরে। ব্যবসায়ীরা মালামাল নিয়ে দিকবেদিক ছুটতে থাকে, বারেক সুপার মার্কেটের ৩য় তলা ও ৪র্থ তলায় বসবাসরত পুরুষ ও মহিল এবং শিশুরাও উপর থেকে লাফ দিয়ে নিচে নামার চেষ্টা করে। এতে কয়েকজন আহতও হয়।

স্থানীয় দোকানীরা জানান বাজারের রাস্তায় দখল করে ফুটপাতে দোকান গড়ার কারনে ১ম দিকে ফায়ার সার্ভিসকে মারাত্ম বেগ পেতে হয়েছে। এদিকে আগুন লাগার পরে আশপাশের বাসাবাড়ীর লোকজন ও ব্যবসায়ীরা দ্রুত বেড়িয়ে আসে, সেই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে বাসা বাড়িও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুড়ি হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…