• শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৬ অপরাহ্ন

হাজীগঞ্জে খালের অবৈধ দখলমুক্ত করে জলাবদ্ধতা নিরসন করলেন মেয়র

আপডেটঃ : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১

নিজস্ব প্রতিনিধি:
হাজীগঞ্জ বাজার থেকে রেলস্টেশন পর্যন্ত খালের বেশিরভাগ অংশ অবৈধভাবে দখল হয়ে গেছে। জেলা পরিষদের মালিকানাধীন এই খালের যে টুকু বাকি আছে সেই অংশটুকু (কাবলি আনুর বাড়ির সামনে) কে বা কারা গত দুই দিন পূর্বে বালি ফেলে ভরাট করে দখলে নেয়। এতে পৌরসভাধীন ৪নং ওয়ার্ড মকিমাবাদ গ্রামের পূর্বাংশে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়।
বিষয়টি জানতে পেরে পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম নির্দেশনায় প্যানেল মেয়র-১ ও ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাহিদুল আযহার আলম বেপারী ঘটনাস্থলে উপস্থিত থেকে খালটির অবৈধ দখলকৃত অংশ দখলমুক্ত করেন। গত সোমবার দিনব্যাপী পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে শ্রমিকদের সাথে কাজ করে খালটি দখলমুক্ত করা হয়। এতে খালের পানি প্রবাহের পথ উন্মুক্ত এবং জলাবদ্ধতা নিরসন হয়।
জানা গেছে, হাজীগঞ্জ বাজারের স্টেশন রোড সংলগ্ন বাজার থেকে রেলস্টেশন পর্যন্ত জেলা পরিষদের মালিকানাধানী খালটি দিয়ে বাজারসহ পৌরসভাধীন ৬ ওয়ার্ড মকিমাবাদ গ্রামের পশ্চিমাংশ ও ৪নং ওয়ার্ড মকিমাবাদ গ্রামের পূর্বাংশের পানি নিস্কাসন হয়ে থাকে। ইতিমধ্যে খালটি বেশিরভাগ অংশ অবৈধভাবে দখল হয়ে গেছে।
গত দুই দিন পূর্বে কে বা কারা খালটির বাকি অংশ বালু ফেলে ভরাট করে। এতে করে ৪নং ওয়ার্ডের পূর্বাশেং জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। পরে মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপন বিষয়টি জানতে পেরে খালটির ভরাটকৃত অংশ দখলমুক্ত করা হয়। এতে ওই এলাকার জলাবদ্ধতা নিরসন হওয়ায় পৌর মেয়রসহ সংশ্লিষ্ট এলাকার কাউন্সিলরের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন স্থানীয়রা।
এ বিষয়ে প্যানেল মেয়র-১ ও ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ জাহিদুর আযহার আলম বেপারী বলেন, মেয়র আ.স.ম মাহবুব-উল আলম লিপনের নির্দেশনায় অবৈধভাবে দখলকৃত খালের অংশ দখলমুক্ত করে পানি প্রবাহের পথ উন্মুক্ত করা হয়েছে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…