• শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০১:৫৭ অপরাহ্ন

হাজীগঞ্জে করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া নারীর কবর খুড়লেন পুলিশ ও সাংবাদিক

আপডেটঃ : শনিবার, ২ মে, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে প্রথমবারের মতো ফাতেমা নামে এক নারী মারা গেছেন। শুক্রবার (১ মে) রাতে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় তিনি মারা যান। ফাতেমা হাজীগঞ্জ উপজেলার রাজারাগাঁও ইউনিয়নের বাসিন্দা। রাতেই নিহতের দাফন সম্পন্ন হয়।

 

স্থানীয় কোন লোকজন না পাওয়ায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ ও কচুয়া সার্কেল) মো. আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে কবর খুঁড়েন হাজীগঞ্জ থানা পুলিশ এবং জানাযা ও দাফন কাজ সম্পন্ন করেছেন মাও. যোবায়ের আহমেদ নেতৃত্বে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দ।

 

জানা গেছে, ফাতেমা কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। শুক্রবার রাতে তাকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। গুরুতর অসুস্থ থাকায় হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে তাকে ভর্তি রাখা হয়। ভর্তির মাত্র দুই ঘণ্টার মধ্যেই তিনি মারা যান।

 

মৃত ফাতেমা বেগম স্বামী-সন্তানসহ চাঁদপুর শহরে বসবাস করতেন। তার স্বামী জাহাঙ্গীর হোসেনের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামে। তবে তার শ্বশুরবাড়ি হাজীগঞ্জ উপজেলার রাজারগাঁও ইউনিয়নে।

 

এ দিন রাতেই নিহতের মরদেহ গ্রামের বাড়ি হাজীগঞ্জের রাজারগাঁও নিয়ে আসা হয়। কিন্তু কবর খুঁড়তে কোন লোক না পাওয়ায় চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হাজীগঞ্জ ও কচুয়া সার্কেল) মো. আফজাল হোসেন নিজেই কবর খুঁড়েন। এ সময় তাঁকে সহযোগিতা করেন হাজীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জয়নাল আবেদীন-১, সাংবাদিক সাইফুল ইসলাম সিফাত, স্থানীয় ইউপি সদস্য ইসমাইল হোসেনসহ জানাজা ও দাফন করা টিম ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মুখপাত্র মাওলানা যোবায়ের আহমেদ।

 

এদিকে নিহতের দাফন কাজ সম্পন্ন করতে শনিবার ফজর পর্যন্ত হয়ে যায়। পরে দাফন কাজে অংশগ্রহণকারীরা পানি পান করে রোজা শুরু করেন।

 


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…