• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন

হাজীগঞ্জ তারালিয়ায় যুবসমাজের উদ্যোগে বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

আপডেটঃ : মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০

 

মোঃ মনির হোসেন
বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে স্তব্ধ। এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। সারা দেশের মানুষ যখন লকডাউনে ঘরে বসে আছেন, বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। এমন পরিস্থিতিতে বন্ধ হয়ে গেছে খেটে খাওয়া মানুষদের কাজকর্ম। সেই মুহূতে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বাড়িতে অবস্থানকারী গরীব, অসহায় ও দুস্থ্যদের বাড়ী বাড়ী গিয়ে সামাজিক দূরন্ত বজায় রেখে খেটে খাওয়া কর্মহীন অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন হাজীগঞ্জ উপজেলার ৯নং গর্ন্ধব্যপুর উঃ ইউনিয়ননের ৩ নং ওয়াডের্র তারালিয়ার যুবসমাজের যুবকেরা।

 

গত কয়েকদিন যাবত রাতের আধাঁরে তারালিয়ার যুবসমাজের কিছু যুবকের উদ্যোগে কর্মহীন দরিদ্র পরিবারের মাঝে চাউল, আটা, আলু, তৈল, ডাল ও সাবান বিতরণ করেছেন।

তারালিয়ায় যুবসমাজের যুবকেরা বলেন আমরা আমাদের নিজেদের অর্থ দিয়ে এবং গ্রামের গুটি কয়েক মানুষের অর্থায়নে এই আয়োজন করেছি।

 

তারা আরো বলেন, করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। যারা শ্রমিক শ্রেণির লোকজন তাদের অবস্থাও শোচনীয়, পরিবার পরিজন নিয়ে না খেয়ে আছে। তাই দেশের প্রত্যেকটা নাগরিকের দায়িত্ব কর্মহীন লোকজনের পাশে দাঁড়ানো। সেই তাগিদ থেকেই আমরা অসহায় লোকজনের পাশে থাকতে চাই।

 

দেশের এই ধরনের পরিস্থিতিতে এলাকাবাসীর এই উপকার করতে পারাটা আমরা সেবা হিসেবেই মনে করি, ভবিষ্যতে এমন আরও সেবা মূলক কাজে এগিয়ে আসাবো ইনশাআল্লাহ।

 

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাছিনা করোনার বিরুদ্ধে যে ঘোষণা করেছেন। এই ঘোষণা সফল করতে হলে ধৈর্য্য ধারন করে প্রত্যেককে ঘরে থাকা নিশ্চিত করতে হবে, সরকারের পাশাপাশি বিওবানরা অসহায় দরিদ্রদের সহোয়োগিতার হাত বাড়িয়ে দিবে, তাহলেই এই বিরাজমান সংকট মোকাবেলা করা সম্ভব হবে । এ কারনে আমরা সমাজের নিম্ন আয়ের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। এই পরিস্থিতিতে সমাজের সকল বিত্তবানদের অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো জরুরি বলে মনে করছি।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…