• শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৬:৫৫ পূর্বাহ্ন

ঢাকার শুয়ারিঘাট অগ্নিকান্ডে নিহত কচুয়ার শ্রমিক মনির হোসেনের বাড়িতে শোকের মাতম

আপডেটঃ : শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১

মানবখবর: ঢাকার শুয়ারীঘাট অগ্নিকান্ডে নিহত মনির হোসেনের পরিবার। ইনসেটে নিহত মনির।

জিসান আহমেদ নান্নু,কচুয়া ॥
পুরান ঢাকার শুয়ারিঘাট নিউ রোমানা রাভার (জুতার) ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে নিহত চাঁদপুরের কচুয়ার বাইছারা গ্রামের শ্রমিক মনির হোসেনের পরিবারের শোকের মাতম বইছে। বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে রাভার ফ্যাক্টারীতে ডিউটিরত অবস্থায় অপর চারজন ব্যক্তিসহ মনির হোসেন অগ্নিদগ্ধে হয়ে মারা যায়।
গতকাল শুক্রবার সরেজমিনে কচুয়ার বাইছারা গ্রামের নিহত মনির হোসেন এর মা আফরোজা বেগম বলেন, প্রায় দশমাস পূর্বে আমার স্বামী মির্জা হাসেম মারা যান। ঢাকায় অগ্নিকান্ডে পরিবারের উপার্জনক্ষম একমাত্র ছেলে মনির হোসেনকে হারিয়ে তিনি বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন এবং ছেলের বউ,নাতি -নাতনীদের ভবিষ্যত নিয়ে হাউ মাউ করে কেদে ফেলেন।
অন্যদিকে নিহতের স্ত্রী নুরহাজান বেগম বলেন,আমার স্বামী গত মাসের ৪তারিখ সর্বশেষ বাড়িতে আসেন। অবুঝ ২ ছেলে ও ১ মেয়েকে নিয়ে এখন কী করব এ কথা বলে তিনিও কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন । স্থানীয়রা জানান, মনির হোসেন একটি নিরীহ পরিবারের সন্তান। তার এ মৃত্যুতে পরিবারের লোকজন মারাত্মক বিপদের মুখে পড়ে গেলেন। এলাকাবাসী ও সামর্থ্যবান ব্যক্তিরা নিহত মনির হোসেনের অসহায় পরিবারকে সাহায্যের হাত বাড়াতে দাবি জানান।
একই গ্রামের প্রতিবেশী কাজী আব্দুল বাতেন বলেন, মনির হোসেন আমার খালাতো ভাই হন। তিনি দীর্ঘ কয়েক বছর পুরান ঢাকায় রুমানা জুতার ফ্যাক্টরীতে কর্মরত রয়েছেন। অসহায় মনির হোসেনের পরিবারের পাশে দাড়াঁতে রুমানা কারখানার মালিকপক্ষ হাজী রফিকুল ইসলামের প্রতি জোর অনুরোধ জানাই। এদিকে মনির হোসেনের মৃত্যুর খবর পেয়ে এলাকার শতশত নারী পুরুষ তার বাড়ীতে ভিড় জমান। এসময় মনির হোসেনের স্বজন ও এলাকাবাসীর কান্নায় আকাশ ভারী হয়ে উঠে।


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

ফেসবুকে মানব খবর…