মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
গত বছরের ডিসেম্বর মাসে ফুটবল খেলতে গিয়ে কোমরের হাড়ে গুরুতর আঘাত পায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থী মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম আকাশ। ওই সময় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বাবার সঞ্চয় ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় অপারেশন করা হয়। কিন্তু অর্থাভাবে পরিপূর্ণ চিকিৎসা না হওয়ায় বর্তমানে তার কোমরের দুইটা মাংশপেশির ইনফ্লামেশন হয়েছে। এতে করে তার কিডনি সহ শরীরের অনেক অর্গান ড্যামেজের আশংকা করছেন চিকিৎসকরা।
উন্নত চিকিৎসার জন্য মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম আকাশকে ভারতে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক। এ জন্য প্রয়োজন প্রায় ৭ লাখ টাকা। কিন্তু দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ও দরিদ্র বাবার পক্ষে এই টাকা সংগ্রহ করা কোনভাবেই সম্ভব নয়। যেখানে জীবিকা নির্বাহ করাই তার কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে, সেখানে ছেলের চিকিৎসা করাবেন কি করে ? তাই আকাশের চিকিৎসায় সরকারি-বেসরকারি ও বিত্তবানদের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।
মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম আকাশ কচুয়া উপজেলার গোহট দক্ষিণ ইউনিয়নের আমুজান গ্রামের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী (মৃধু) মাহবুব আলমের মেঝো ছেলে। সে লক্ষ্মীপুর জেলা সমাজসেবার অধিনে থেকে পড়ালেখা করে। আকাশের চিকিৎসায় সহযোগিতা করতে তার বাবার সাথে যোগাযোগ করুন। মাহবুব আলম বিকাশ ০১৮৩১-৯৭৬-৫৭৩, নগদ ০১৭২৭-৩০৯-৯০১ এবং আল-আরাফা ইসলামি ব্যাংকের রহিমানগর শাখার একাউন্ট নাম্বার- ০৯০১১২০০৯৪৭৫১।

গোহট দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শাহারিয়ার শাহিন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মাহবুবের ছেলের উন্নত চিকিৎসায় কয়েক লাখ টাকার প্রয়োজন। তিনি বিত্তবানদের সহযোগিতার আহবান জানান।

Share This post