মনিরুল ইসলাম মনির :
চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় মাদরাসা ছাত্র মো. শাহিন (১৪) নামে এক কিশোরের লাশ নিজ বসত ঘর থেকে উদ্ধার করেছে মতলব উত্তর থানা পুলিশ। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে পুলিশ। খবর পেয়ে মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মাসুদ’সহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনান্থল পরিদর্শন করেন।
জানা যায়, উপজেলার গজরা ইউনিয়নের গজরা গ্রামের রহমত প্রধানের ছেলে মো. শাহিন (১৪)। মো. শাহিন আউলিয়াবাগ দাখিল মাদ্রাসার চতুর্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী ছিলেন। নিহতের স্বজনদের দাবি এটি আত্মহত্যা নয়, হত্যা।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, একটি হাঁস চুরিকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের মোহাম্মদ মিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মো. বাবু ও তার সাথে থাকা লোকজন মিলে মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) সন্ধ্যায় শাহীনকে মারধর করে এবং তার পরিবারের লোকজনকে হুমকি ধামকি দিয়ে যায়। বুধবার (২৪ মার্চ) বুধবার সকালে মো. শাহিনের লাশ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে মতলব উত্তর থানা পুলিশকে অবহিত করলে, পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য চাঁদপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে।
নিহত মো. শাহিনের মা শান্তি বেগম বলেন, আমার ছেলেকে হাঁস চুরির মিথ্যা অভিযোগে রাস্তায় একা পেয়ে বেধম মারে, পরে আমার বাড়িতে এসে আমাকেও মেরে ফেলার হুমকি দামকি দিয়ে যায় মো. বাবু।
মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ শহজাহান কামাল বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

Share This post