রাফিউ হাসানঃ
চাঁদপুরের শাহরাস্তির পৌর নির্বাচনে দ্বিতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত (নৌকা)র প্রার্থী হাজী আব্দুল লতিফ। পৌরসভার ১২টি ওয়ার্ডে ১৩টি কেন্দ্রে ১৯ হাজার ৮শ ২৩ জন ভোটার ভোটদান কার্যক্রমে অংশ নেয়। ভোটারদের প্রত্যক্ষ ভোটে উপজেলা আওয়ামীলীগের উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির প্রধান সমন্বয়ক, পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক বর্তমান মেয়র হাজী আঃ লতিফ (নৌকা প্রতীক) ১২ হাজার ৮৬৪ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে পূনঃনির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র মোঃ মোস্তফা কামাল (মোবাইল ফোন প্রতীক) ৩ হাজার ৯৭৯ ভোট পেয়েছেন এবং ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন মিয়াজী ২ হাজার ৯৮০ ভোট পেয়েছেন। কোথাও কোথাও সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা-ধাওয়ার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে পঞ্চম ধাপের শাহরাস্তি পৌরসভার ভোট গ্রহণ। নির্বাচনকে ঘিরে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা ছিল লক্ষ্যনীয়। সকাল হতেই বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি ছিল লক্ষ্যনীয়। রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারী) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এর মাধ্যমে ভোট গ্রহণ হয়। এরপর কেন্দ্রে কেন্দ্রে প্রার্থীদের এজেন্টদের উপস্থিতিতে ভোট গণনা শুরু হয়। এদিকে নির্বাচনে অনিয়ম, জালিয়াতি, এজেন্টদের বের করে দেয়া ও গাণিতিক ভাবে তৈরিকৃত ফলাফলের মাধ্যমে নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার অভিযোগে বিকেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছেন বিএনপি প্রার্থী মোঃ ফারুক হোসেন মিয়াজী। নির্বাচনে মেয়র ছাড়াও কাউন্সিলর পদে ১২ টি ওয়ার্ডে ৫১ জন প্রার্থী ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ৪ টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৩ জন মহিলা প্রার্থী অংশগ্রহণ করেছেন। উল্লেখ্য যে, শাহরাস্তি পৌরসভায় ৩০ হাজার ৮৭৭ জন ভোটার রয়েছে। তার মধ্যে ১৫ হাজার ২৩৭ জন পুরুষ ও ১৫ হাজার ৬৪০ জন নারী ভোটার রয়েছে। পৌরসভার কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন এক নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ জয়নাল আবেদীন (উটপাখি), দুই নম্বর ওয়ার্ডে আজাদ হোসেন (উটপাখি), তিন নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ মকবুল আহমেদ (পাঞ্জাবি), চার নম্বর ওয়ার্ডে শাহাব উদ্দিন আলম (পানির বোতল), পাঁচ নম্বর ওয়ার্ডে প্রহল্লাদ চন্দ্র দে (উটপাখি), ছয় নম্বর ওয়ার্ডে কাজী মোঃ আবদুল কুদ্দুস (পাঞ্জাবি), সাত নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ দেলোয়ার হোসেন (পানির বোতল), আট নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ মিজানুর রহমান (উটপাখি),নয় নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ মিজান মোল্লা (উটপাখি), দশ নম্বর ওয়ার্ডে তুষার চৌধুরী রাসেল (পানির বোতল), এগারো নম্বর ওয়ার্ডে মোঃ আবুল কাসেম (পাঞ্জাবি) ও বারো নম্বর ওয়ার্ডে শাহনেওয়াজ (উটপাখি) প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছে। এ দিকে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন এক নম্বর ওয়ার্ডে সাহানা সুলতানা (চশমা), দুই নম্বর ওয়ার্ডে রাবেয়া বসরী বকুল (চশমা) তিন নম্বর ওয়ার্ডে রাবেয়া বেগম (টেলিফোন) ও চার নম্বর ওয়ার্ডে জাহানারা আক্তার (আনারস) প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হয়েছে।

Share This post