মোহাম্মদ হাবীব উল্যাহ্
ধর্ষণ ও বলৎকারের সর্বোচ্ছ শাস্তির দাবি করে হাজীগঞ্জ বাজারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার নেতৃবৃন্দ। বুধবার বাদ আছর হাজীগঞ্জ ঐতিহাসিক বড় মসজিদের সম্মুখে কুমিল্লা-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এই মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে ইসলামী ছাত্রসেনার নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা।
মানববন্ধনে ও মিছিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক গাজী মো. আব্দুর রাহীম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, দেশে শুধুমাত্র বিবাহ, তালাক ও সম্পত্তিগত বিষয়ে ইসলামী শরিয়াহ আইন অনুযায়ী করা হয়। যদি অন্যান্য ক্ষেত্রেও ইসলামী আইন অনুসরণ করা হতো, তাহলে দেশে ধর্ষণ, বলৎকার, হত্যা, ঘুষ ও দূর্ণীতি এবং মাদকের বিস্তারসহ সকল অপরাধমূলক কার্যক্রম মহামারি আকারে হতো না। তাই অপরাধমুক্ত সমাজ গঠনে যুগোপযোগি আইন বাস্তবায়নের দাবী জানান গাজী মো. আব্দুর রাহীম।
মানববন্ধনে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন এবং বক্তব্য শেষে দেশ ও জাতীর সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, ঘনিয়া দরবার শরীফের সাহেবজাদা মাও. বজলুর রহমান আখন্দ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার জেলা ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মো. বিল্লাল হোসেন তালুকদার, ইসলামী ছাত্রসেনার জেলা সাধারণ সম্পাদক মো. নূর আলম ফরাজী ও সহ-সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান।
মানববন্ধনের শুরুতেই কোরআন তেলওয়াত করেন, ইসলামী যুবসেনার উপজেলার সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. নিজাম উদ্দিন। এরপর স্বাগত বক্তব্য রাখেন, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলের সভাপতি এবং বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার হাজীগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মো. গিয়াস উদ্দিন। সঞ্চালনা করেন, উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ হোসাইন।
এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা ইসলামী ছাত্রসেনার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রাজিব হোসাইন প্রমুখ। এ ছাড়াও উপজেলা ছাত্রসেনার সহ-সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মো. জাহিদ ও মো. ফারুক হোসেন, দপ্তর সম্পাদক মো. মহিউদ্দিনসহ উপজেলা ছাত্রসেনার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত নেতা-কর্মী সমর্থকেরা উপস্থিত ছিলেন।

Share This post