শিমুল হাছান / গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ:
বসত ঘরের ষ্টিলের আলমিরাতে ৮৫ হাজার টাকা ও স্বর্নালংকার রেখে এক ব্যবসায়ীর স্ত্রী কয়েক ঘন্টার জন্য ঘরে তালা মেরে বাপের বাড়ি যায়। এ সুযোগে কে বা কারা ঘরের মূল ফটকের তালা ভেঙ্গে উক্ত টাকা ও ৬ ভরি স্বর্নালংকার লুট করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলা সদরের কাছিয়্ড়াা গ্রামে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ বাসষ্টান্ডে ব্যাটারীর ব্যবসায়ী জামালের স্ত্রী শারমিন আক্তার মঙ্গলবার বেলা ১১ ঘটিকার সময় বসত ঘরে তালা মেরে একমাত্র ছেলে জিহাদুল ইসলাম শাওনকে নিয়ে স্বামীর বাড়ির পাশবর্তী চরবড়ালী গ্রামের শারমিনের বাপের বাড়িতে যায়। এক পর্যায়ে ওইদিন দুপরে জামাল বাড়িতে গিয়ে দেখে তার বসত ঘরে তালা ভাঙ্গা। ভেতরে প্রবেশ করে দেখতে পায় ৩ স্টিলের আলমারির তালা ভেঙ্গে তছনছ করা মালামাল ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে।
পৌর এলাকায় দিনে দুপুরে এমন নেক্কারজনক ঘটনার সংবাদ শুনে এলাকাবাসীর মধ্যে এক অজানা আতংক বিরাজ করতে দেখাগেছে ।
ব্যবসায়ী জামাল ও তার স্ত্রী শারমিন আক্তার জানান , কৌশলে বসত ঘরের মূল ফটকের তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করে স্টিলের আলমিরা ভেঙ্গে ৮৫ হাজার টাকা ও ৬ ভরি র্স্বর্নালংকার ও মোবাইল এবং ট্যাব লুটে করে নিয়ে গেছে।
এ ঘটনার খবর পেয়ে থানা পুলিশ ও স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনার মোহাম্মদ হোসেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
উক্ত বিষয়ে ব্যবসায়ী জামাল হোসেন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

Share This post