গাজী মমিন, ফরিদগঞ্জ:
ফরিদগঞ্জের রূপসা (উ:) ইউনিয়নের বদরপুর গ্রামের আমিন উদ্দিন বাড়িতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইমারত নির্মাণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এনিয়ে শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙ্গের আশংকা রয়েছে।
সরেজমিনে জানাগেছে, বদরপুর গ্রামের আমিন উদ্দিন বাড়ির নজির আহমদ একই বাড়ির আয়েশা বেগম থেকে ২০০৫ সনে বদরপুর মৌজার সাবেক ৩২১ নং হাল ১৬৬ নং বদরপুর মৌজার সিএস ২৯৫,এসএ ২৬২,বিএস ১৬৬ নং খতিয়ানের নামজারী জমা খারিজ ১৯৫৭ নং খতিয়ানভুক্ত সাবেক ৪৭৮ বিএস ৯৭৪ দাগে দুই শতক বসত বাড়ির ভিটি ক্রয় করেন। সাম্প্রতিক কালে আয়েশা বেগমের ভাই আবুল হোসেন গং উক্ত ভুমিতে পাকা ইমারত নির্মাণের চক্রান্ত করে।
বিষয়টি টের পেয়ে খরিদ সুত্রে জমির মালিক নজির আহমদ চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে একটি দরখাস্ত মামলা নং-৬৪১/২০২১ দায়ের করেন। অভিযোগটি আমলে নিয়ে আদালত চলতি বছরের ১৮মে শান্তি-শৃঙ্খলা ভঙ্গের আশংকায় ১৪৫ধারা( স্মারক নং১৫৪৩) জারি করেন। এরই প্রেক্ষিতে ফরিদগঞ্জ থানার উপ-সহকারি পুলিশ পরিদর্শক মো. আবদুর রাজ্জাক ঘটনার স্থানে হাজির হয়ে উভয় পক্ষের লোকজনকে ডেকে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ১৪৫ ধারা বিষয়টি অবগত করেন। কিন্তু অপর পক্ষ আবুল হোসেন গং আদালদের সেই নিদের্শকে বৃদ্ধাঙ্গুলী দেখিয়ে পুনরায় পাকা ইমারাত নির্মানের চেষ্টায় লিপ্ত থাকতে দেখা যায়।
এদিকে সম্পত্তি বিক্রেতা আয়েশা বেগম সম্পত্তি বিক্রির কথা স্বীকার করে জানান, উক্ত স্থানে তার একটি বসতঘর ছিলো যা তিনি নজির আহাম্মেদ-এর কাছে বিক্রি করেছেন।
এ বিষয়ে আবুল হোসেনকে বাড়ীতে পাওয়া না গেলেও তার ছেলে ইব্রাহিম জানান, এটা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। একই বাড়ির অন্যান্য শরিকদের সাথে আমরা কাজ করছি।

Share This post